1. shahalom.socio@gmail.com : admin :
  2. dbcjournal24@gmail.com : ডিবিসি জার্নাল ২৪ : ডিবিসি জার্নাল ২৪
শনিবার, ১৬ জানুয়ারী ২০২১, ১১:৪৭ অপরাহ্ন

দুর্গাপুরে সেফটি ট্যাংক থেকে মোবাইল তুলতে গিয়ে মা ছেলে মর্মান্তিক মৃত্যু

  • আপডেট করা হয়েছে বৃহস্পতিবার, ২৮ মে, ২০২০
  • ১৪০৯ বার পড়া হয়েছে

দুর্গাপুর প্রতিনিধি: রাজশাহীর দুর্গাপুরে সেফটি ট্যাংক থেকে মোবাইল ফোন তুলতে গিয়ে বিষক্রিয়ায় মা ছেলে মর্মান্তিক মৃত্যু হয়েছে। ঘটনাটি ঘটেছে বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা ৭টার দিকে উপজেলার কয়ামাজমপুর গ্রামে। এ ঘটনায় পুরো গ্রামে শোকের ছায়া নেমে এসেছে। ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে পুলিশ।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, উপজেলার কয়ামাজপুর গ্রামের আব্দুল কুদ্দুসের পুত্র ও কয়ামাজমপুর উচ্চ বিদ্যালয়ের দশম শ্রেণীর ছাত্র রাসেল (১৬) প্রকৃতির ডাকে সাড়া দিতে বাড়ির পাশেই রিং স্লাব দিয়ে তৈরী আধাপাকা পায়খানায় যায়। এসময় অসাবধনতা বশঃত পকেট থেকে তার মোবাইল ফোনটি পায়খানার ভিতরে পড়ে যায়। শৌচকাজ সেরে রাসেল বাড়ি ফিরে ঘটনাটি তার মা ফিরোজা বেগমকে জানায়। পরে মা ছেলে মিলে পড়ে যাওয়া মোবাইল ফোনটি তুলতে যায়।

প্রথমে রাসেল হাতে পায়ে পলিথিন জড়ে রিং উঠিয়ে পায়খানার মধ্যে নামেন। এ সময় মোবাইল ফোন খোঁজার চেষ্টা করতে থাকলে এক পর্যায়ে বিষক্রিয়ায় অজ্ঞান হয়ে পড়ে। এ সময় বুঝতে পেরে ছেলেকে উদ্ধার করতে তার মা ফিরোজা বেগমও সেফটি ট্যাংকের মধ্যে নামলে তিনিও বিষক্রিয়ায় জ্ঞান হারিয়ে ফেলেন। ঘটনার কিছুক্ষন পর প্রতিবেশীরা বুঝতে পেরেমা ছেলেকে সেফটি ট্যাংক থেকে উদ্ধার করেন।

পরে মা ছেলেকে স্থানীয় এক গ্রাম্য ডাক্তারকে খবর দেয়া হলে গ্রাম্য ডাক্তার আব্দুল ওয়াহেদ লালন গিয়ে মা ছেলেকে উন্নত চিকিৎসার জন্য উপজেলা স্বাস্থ্য কেন্দ্রে নিয়ে যাওয়ার পরামর্শ দেন। ততক্ষনে মা ছেলে মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়েন। এরপর ঘটনাটি স্থানীয় লোকজন থানা পুলিশকে জানান।

দুর্গাপুর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) খুরশীদা বানু কণা জানান, খবর পেয়ে সেখানে পুলিশ ফোর্স পাঠানো হয়েছে।

শেয়ার করুন

কমেন্ট করুন

আরো সংবাদ পড়ুন