1. brigidahong@tekisto.com : anthonyf69 :
  2. mieshaalbertsoncqb@yahoo.com : delorismoffitt :
  3. gkkio56@morozfs.store : doriereddick :
  4. : admin :
  5. kleplomizujobq@web.de : humbertoabdullah :
  6. sjkwnvym@oonmail.com : joellennnx :
  7. zpmylwix@oonmail.com : lela88146910269 :
  8. gertrudejulie@corebux.com : modestaslapoffsk :
  9. cristinamcmaster6222@1secmail.com : renetrotter53 :
  10. mild@dewewi.com : sheldon37s :
ঐতিহ্যের 'তালন্দ ভবন' নষ্টের পথে! - ডিবিসি জার্নাল২৪
বুধবার, ১৯ জুন ২০২৪, ০৮:৩০ অপরাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ
ঈদের পরদিনই পরিচ্ছন্ন নগরী পেলেন রাজশাহীবাসী রাজশাহীতে ঈদের প্রধান জামাত সকাল সাড়ে ৭টায় উত্তরাঞ্চলে বাড়ছে যাত্রী গাড়ির চাপ থাকলেও নেই যানজট বিএনপি-জামায়াত বাংলাদেশের গণতান্ত্রিক প্রক্রিয়াকে ব্যাহত করার চেষ্টা চালাচ্ছে- প্রতিমন্ত্রী আব্দুল ওয়াদুদ বাঘায় সাতশ’১০ বোতল ফেনসিডিল উদ্ধার,নৌকা জব্দ বেলকুচিতে সংবাদ প্রকাশের জের ধরে সাংবাদিক সোহরাওয়ার্দী কে প্রকাশ্যে হুম রাজশাহীর দুর্গাপুরে দৈনিক যায়যায়দিনের ১৯তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উদযাপন রাজশাহীর তিন উপজেলা সহ ১৯ উপজেলার চেয়ারম্যান ও ভাইস চেয়ারম্যানের শপথ গ্রহন ঘর পেয়ে বদলে গেছে মানুষের জীবনমান : শেখ হাসিনা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কারামুক্তি দিবস আজ 

N

ঐতিহ্যের ‘তালন্দ ভবন’ নষ্টের পথে!

  • আপডেট করা হয়েছে শনিবার, ৮ এপ্রিল, ২০২৩
  • ৯৩ বার পড়া হয়েছে

নিউজ ডেস্ক: রাজশাহীর অনেক পূরানো ঐতিহ্য নষ্ট হয়ে গেছে। এখন পর্যন্ত যেটা টিকে আছে সেটা সাহেব বাজার বড় মসজিদ হতে পূর্ব দিকে পুরাতন স্টার স্টুডিওর সামনে এ ভবনটি অবস্থিত। রাজশাহী মহনগরীতে জমিদার বাড়িসমূহের মধ্যে একমাত্র এ ভবনটি এখনো টিকে আছে এবং রাজশাহী অঞ্চলের জমিদারদের আভিজাত্য ও ভাবগাম্ভীর্যের বার্তা বহন করে চলেছে।

তানোর উপজেলার তালন্দ গ্রামের জমিদারদের প্রায় সাড়ে চার বিঘার উপর নির্মিত এ বিশাল বাড়িটি তিনটি ব্লকে বিভক্ত। রাস্তা সংলগ্ন সুউচ্চ ও অর্ধবৃত্তাকৃতি এক বিশাল প্রবেশদ্বার দিয়ে এ বাসগৃহে প্রবেশ করতে হতো একসময় এবং এটা এতই বিশাল ছিলো যে এ প্রবেশপথ দিয়ে জমিদার মহাশয় এর হাতি প্রবেশ করতো একসময়। প্রবেশপথের উভয় পাশে একটি করে ক্ষুদ্রাকৃতির প্রহরী কক্ষসহ দুটি করে চারটি কক্ষ বিদ্যমান। প্রবেশ পথ পেরিয়ে কাচারি অঙ্গন। কাচারি অঙ্গনের পশ্চিম পাশে দ্বিতল বিশিষ্ট প্রথম ব্লকের নিচতলা কাচারি অফিস হিসেবে এবং উপরতলা আবাস কক্ষ হিসেবে ব্যবহৃত হতো।

কাচারি অঙ্গনের পূর্বাংশে অবস্থিত একতলা বিশিষ্ট দ্বিতীয় ব্লকটি বৈঠকখানা ও সঙ্গীত কক্ষ হিসেবে ব্যবহৃত হলেও বর্তমানে এখানে তালন্দ জমিদারদের উত্তরাধিকারী জমিদার মৃত ঋতেন্দ্রমোহন মৈত্রের পুত্র ল্যাডলি মোহন মৈত্রেয় মিলন (বর্তমানে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের সঙ্গীত ও নাট্যকলা বিভাগের খণ্ডকালীন শিক্ষক) সস্ত্রীক বসবাস করছেন। দ্বিতীয় ব্লকটি চারটি কক্ষে বিভক্ত ও চতুর্দিক বারান্দা বেষ্টিত। এ ব্লক থেকে সামান্য দূরে দক্ষিণ-পূর্ব কোণায় রয়েছে তৃতীয় ব্লক; যা ছিল এ ভবনের মূল বাসগৃহ। দ্বিতল বিশিষ্ট ও পশ্চিমমুখী এ ব্লক বা ভবনটিতে নিচ ও উপরতলায় বিভিন্ন আয়তনের মোট ২০টি কক্ষ রয়েছে।

ভবনটি বর্তমানে গোয়েন্দা অফিস (এনএসআই অফিস) হিসেবে ব্যবহৃত হচ্ছে। ইট ও চুন-সুরকির উপকরণে নির্মিত তালন্দ ভবনের সকল কক্ষের উপরিভাগ কাঠের তীর-বর্গা সংবলিত সমতল ছাদে আচ্ছাদিত। দেয়ালগাত্রে পলেস্তারার আস্তরণ ব্যতীত আর কোন অলংকরণ নজরে পড়ে না। তবে ভবনটির সকল ব্লকের মেঝে ভূমি থেকে বেশ উঁচু করে নির্মিত। নির্মাণকাল সম্পর্কিত কোন শিলালিপি বা দলিলপত্র না থাকলেও এ ভবনটি খুব সম্ভব উনবিংশ শতাব্দীর শেষের দিকে নির্মিত বলে অনুমিত হয়। উল্লেখ্য যে, রাজশাহী শহরে বিদ্যমান জমিদারবাড়িসমূহের মধ্যে একমাত্র এ ভবনের তোরণপথটি এখনো টিকে থেকে রাজশাহী অঞ্চলের জমিদারদের আভিজাত্য ও ভাবগাম্ভীর্যের বার্তা বহন করে চলেছে।

আরো সংবাদ পড়ুন

Designed by: ATOZ IT HOST