1. shahalom.socio@gmail.com : admin :
  2. dbcjournal24@gmail.com : ডিবিসি জার্নাল ২৪ : ডিবিসি জার্নাল ২৪
দুর্গাপুরে নির্বাচনে পরাজিত হয়ে প্রতিপক্ষকে ফাঁসাতে বঙ্গবন্ধু ও প্রধানমন্ত্রীর ছবি ভাংচুর-অগ্নিসংযোগ - ডিবিসি জার্নাল২৪
শুক্রবার, ০৯ ডিসেম্বর ২০২২, ০১:৩৩ পূর্বাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ
রাজশাহীতে নগর আওয়ামী লীগের জরুরী মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত দুর্গাপুরে স্বামীর নির্যাতন সইতে না পেরে ৯৯৯ স্ত্রীর ফোন! অতঃপর উদ্ধার ৮ই ডিসেম্বর তাহেরপুর পৌরসভার প্রতিষ্ঠাতা শহীদ আলো খন্দকার এর ১৯তম শাহাদাত বার্ষিকী বাগমারা গনিপুর ইউপি’তে মাধাইমুড়ি-মরাকুড়ি রাস্তা’র বক্সকাটিং এর উদ্বোধন বাবা হত্যার বিচার চাইতে প্রধানমন্ত্রীর কাছে ছুটে আসলেন জাহেদুল নাশকতার মামলায় বিএনপির ৩ নেতা গ্রেপ্তার পুঠিয়ায় প্রতীক বরাদ্দের আগেই চেয়ারম্যান পদপ্রার্থীর পোষ্টার ছাপিয়ে ফেসবুকে প্রচার দুর্গাপুরের ভবানীপুর প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ৫ম শ্রেনীর পরীক্ষার্থীদের বিদায়ে অনুষ্ঠান নাটোরে আখ ক্ষেত থেকে মৃতদেহ উদ্ধার নগর নিরাপত্তায় আরএমপি’র বিভিন্ন কার্যক্রম পরিদর্শন করলেন মাননীয় রাসিক মেয়র

Categories

দুর্গাপুরে নির্বাচনে পরাজিত হয়ে প্রতিপক্ষকে ফাঁসাতে বঙ্গবন্ধু ও প্রধানমন্ত্রীর ছবি ভাংচুর-অগ্নিসংযোগ

  • আপডেট করা হয়েছে বুধবার, ২৯ ডিসেম্বর, ২০২১
  • ৫৫১ বার পড়া হয়েছে

নিজস্ব প্রতিবেদক: রাজশাহীর দুর্গাপুরে ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে পরাজিত হয়ে প্রতিপক্ষকে ফাঁসাতে নির্বাচনী অফিস ভাংচুর ও বাড়িতে অগ্নিসংযোগ এবং বঙ্গবন্ধু ও প্রধানমন্ত্রীর ছবি ভাংচুরের অভিযোগ করেছে ইউপি নির্বাচনে বেসরকারি ভাবে নির্বাচিত দুই চেয়ারম্যান। সোমবার রাতে এসব অভিযোগ পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে।

জানা গেছে, সোমবার সন্ধ্যায় উপজেলার বখতিয়ারপুর গ্রামে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন পাওয়া আহসান হাবীবের নির্বাচনী অফিস ভাংচুরের অভিযোগ আনা হয় বেসরকারি ভাবে নির্বাচিত চেয়ারম্যান রিয়াজুল ইসলাম ও কর্মী সমর্থকদের বিরুদ্ধে। তবে ঘটনার আগের দিন রোববার ওই এলাকায় নির্বাচন শেষ হয়েছে। নির্বাচনের পরে আর নির্বাচনী অফিস থাকার কথা নয় বলে জানা গেছে।

সোমবার বখতিয়ারপুর ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের এক নেতা অভিযোগ করেন, বর্তমান চেয়ারম্যান ও পুণরায় নির্বাচিত চেয়ারম্যান রিয়াজুল ইসলাম তার কর্মী সমর্থকদের নিয়ে রোববার সন্ধ্যার পর বখতিয়ারপুর গ্রামে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন পাওয়া আহসান হাবীবের নির্বাচনী অফিস ভাংচুর করেছেন। পরে থানায় খবর দিলে পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে।

পুণরায় নির্বাচিত চেয়ারম্যান রিয়াজুল ইসলাম বলেন, রোববার নির্বাচন শেষ হয়েছে। পরেরদিন সোমবার কে বা কারা বখতিয়ারপুর বাজারে একটি চায়ের স্টলে রশি দিয়ে ঝুলানো কয়েকটি পোস্টার ছিড়েছে বলে শুনেছি। পরে সেই দোষ আমার উপর চাপানোর চেষ্টা করা হয়। এমনকি ঘটনার পরে সেখানে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ছবি এনে ভেঙ্গে ফেলে রাখা হয়। এ ঘটনায় উল্টো তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া উচিৎ। নির্বাচনে পরাজিত হয়ে আহসান হাবীব ও তার লোকজন পুরো ঘটনাটি সাঁজিয়েছেন।

এদিকে, একইদিন রাত ১টার দিকে নওপাড়া ইউনিয়নের গোপালপুর ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি সাইফুল ইসলাম তার বাড়িতে অগ্নিসংযোগ করা হয়েছে বলে দাবি করেন। খবর পেয়ে পুলিশে গিয়ে দেখেন বাড়িতে নয়, বাড়ির বাইরে খড়ের গাদায় আগুন দেয়া হয়েছে। আগুন লাগার পর সেই আগুন পানিতে নেভানো হয়েছে এবং সেখানে বঙ্গবন্ধু ও প্রধানমন্ত্রীর ছবি রাখা হয়েছে তবে সেগুলো পুড়েনি। এ ঘটনায় রাতেই তিনি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে কয়েকটি ছবি ও ৩৫ সেকেন্ডের একটি ভিডিও ক্লিপ আপলোড করেন। ওই ভিডিও ক্লিপ দেখে নাম প্রকাশ না করার শর্তে এলাকাবাসীরা জানান, পুরো ঘটনাটি পরিকল্পিত ও সাঁজানো। কেননা রাত দেড়টার সময় আগুন লাগার পরে সাধারণত কেউ ভিডিও করার কথা নয়। তাছাড়া খড় পুড়লেও বঙ্গবন্ধু ও প্রধানমন্ত্রীর ছবি পুড়েনি।

নওপাড়া ইউনিয়নে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে বেসরকারিভাবে বিজয়ী চেয়ারম্যান শফিকুল আলম বলেন, আওয়ামী লীগের মনোনয়ন নিয়েও বর্তমান চেয়ারম্যান সাইফুল ইসলাম নির্বাচনে তার কাছে পরাজিত হয়েছেন। এখন এলাকার আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতির বিঘ্ন ঘটাতে তার বিরুদ্ধে নানা রকম ষড়যন্ত্র করা হচ্ছে।

এসব বিষয় নিয়ে কথা বলা হলে থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) হাসমত আলী বলেন, অভিযোগ গুলো তদন্ত করা হচ্ছে। পৃথক ঘটনায় কোনো মামলা দায়ের হয়নি। ওইসব এলাকার উভয় প্রার্থীর কর্মী সমর্কদের আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতির বিঘ্ন না ঘটাতেও অনুরোধ করা হয়েছে বলেও জানান ওসি।

শেয়ার করুন

কমেন্ট করুন

আরো সংবাদ পড়ুন