1. shahalom.socio@gmail.com : admin :
  2. dbcjournal24@gmail.com : ডিবিসি জার্নাল ২৪ : ডিবিসি জার্নাল ২৪
বাঘায় বিকাশের দোকান থেকে তিন লক্ষ টাকা ছিনতাই - ডিবিসি জার্নাল২৪
মঙ্গলবার, ০৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ০১:৫৮ পূর্বাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ
প্রধানমন্ত্রীর শিক্ষাবৃত্তি ও বাইসাইকেল পেলো দুর্গাপুরের শিক্ষার্থীরা হিজলী এখন স্মার্ট ভিলেজ! দুর্গাপুরে বাল্যবিয়েতে ঘটকালির অভিযোগে ঘটকের ৬ মাসের কারাদণ্ড  রাজশাহী-৫ আসনের এমপি ডা. মনসুরকে কটুক্তি করে আ.লীগ নেতার অশালীন মন্তব্যে তোলপাড় বিনম্র শ্রদ্ধায় মরহুমা জাহানারা জামানের ৬ষ্ঠ মৃত্যুবার্ষিকী পালিত সবুজ পোশাক কারখানায় বিশ্বের শীর্ষ তালিকায় বাংলাদেশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের তফসিল নভেম্বরে হজযাত্রী নিবন্ধন শুরু ৮ ফেব্রুয়ারি তথ্য উদঘাটনে সাংবাদিকদের বাধা দেয়া যাবে না- হাইকোর্ট রাজশাহীতে শেখ কামাল আন্তঃস্কুল ও মাদ্রাসা এ্যাথলেটিকস প্রতিযোগিতার সমাপনী ও পুরস্কার বিতরণ

Categories

বাঘায় বিকাশের দোকান থেকে তিন লক্ষ টাকা ছিনতাই

  • আপডেট করা হয়েছে বুধবার, ১০ আগস্ট, ২০২২
  • ৯৯ বার পড়া হয়েছে

নিজস্ব প্রতিবেদক, বাঘা :

রাজশাহীর বাঘার ছাতারি এলাকায় অবস্থিত রিমন ইসলাম নামে এক ব্যক্তির বিকাশের দোকান থেকে দুই লক্ষ ৯৭ হাজার টাকা ছিনতাইয়ের ঘটনা ঘটেছে। বুধবার সন্ধ্যায় পার্শ্ববর্তী বলিহার গ্রামের চার যুবক রিমনকে মারপিট করে তার টেবিলের ডয়ার ভেঙ্গে এই টাকা ছিনিয়ে নেয়। এ ঘটনায় রিমন বাদি হয়ে বাঘা থানায় একটি মামলা দায়ের করেছে।
জানা গেছে, উপজেলার ছাতারি গ্রামের মৃত কামরুল মন্ডলের ছেলে রিমন ইসলাম (২৬) তার নিজ বাড়ির সামনে ডিজিটাল কম্পিউটার এ্যান্ড সার্ভিস সেন্টার নামে একটি ব্যবসা প্রতিষ্ঠান খুলে সেখানে বিকাশ এবং নগদ এজেন্ট হিসাবে ব্যবসা পরিচালনা করে আসছেন। সেই সুবাদে তার সাথে অনেকেই অর্থ লেন-দেন করে থাকেন। তবে পাশ্ববর্তী বলিহার গ্রামের নুরা প্রাং এর ছেলে শহিদুল ইসলাম গত এক মাস পূর্বে রিমনের মাধ্যমে কোন এক ব্যক্তির নিকট চার হাজার টাকা বিকাশ পাঠায়। এরপর সে ওই টাকা দুই-চার দিনের মধ্যে দিবে বলে ওয়াদা করে। কিন্তু এক মাস অতিবাহিত হওয়ার পরেও সে টাকা দিতে ব্যর্থ হয়। এ ঘটনাকে কেন্দ্র করে বুধবার সকালে শহিদুল এবং রিমনের সাথে বাকবিতন্ড হয়। ঘটনার এক পর্যায় শহিদুল ইসলাম রিমনকে হুমকি দিয়ে সেখান থেকে চলে যায়।
বুধবার সন্ধ্যায় দুইটি মোটর সাইকেল যোগে সে ও তার ভাতিজাসহ অপর দুই ব্যক্তি রিমনের দোকানে গিয়ে তার উপর হামলা চালায় এবং তার টেবিলের ডয়ার থেকে দুই লক্ষ ৯৭ হাজার টাকা ছিনিয়ে নেয়। এ সময় হামলাকারিরা তার কম্পিউটারের মনিটর ভেঙ্গে ঘটনাস্থল থেকে দ্রুত পালিয়ে যায়।
এ বিষয়ে শহিদুল ইসলামের মোবাইলে যোগাযোগ করা হলে তার ভাই সাইদুল ইসলাম ফোন রিসিভ করে বলেন, চার হাজার টাকা পাওয়ার ঘটনা সঠিক। কিন্তু টাকা ছিনতাইয়ের ঘটনা সঠিক না। সকালে আমার ছেলে ওই দোকানে ফ্লেক্সিলোড নিতে গেলে পাওনা টাকার বিষয় নিয়ে তার সাথে তর্কে জড়িয়ে পড়ে রিমন। এক পর্যায় আমার ছেলেকে ধরে সে মারপিট করে। এই ঘটনার জের ধরে সন্ধ্যায় তাকে মারা হয়।
বাঘা থানা ওসি সাজ্জাদ হোসেন বলেন, অভিযোগ পেয়েছি। বিষয়টি তদন্ত করে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

কমেন্ট করুন

আরো সংবাদ পড়ুন

Designed by: ATOZ IT HOST