1. brigidahong@tekisto.com : anthonyf69 :
  2. mieshaalbertsoncqb@yahoo.com : delorismoffitt :
  3. gkkio56@morozfs.store : doriereddick :
  4. : admin :
  5. kleplomizujobq@web.de : humbertoabdullah :
  6. sjkwnvym@oonmail.com : joellennnx :
  7. gertrudejulie@corebux.com : modestaslapoffsk :
  8. cristinamcmaster6222@1secmail.com : renetrotter53 :
পুঠিয়ায় মোবাইল কিনে না দেওয়ায় অভিমানে কিশোরের বিষ পানে আত্মহত্যা - ডিবিসি জার্নাল২৪
মঙ্গলবার, ২১ মে ২০২৪, ০৮:০২ অপরাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ
দুর্গাপুরের দুইটি কেন্দ্রে চেয়ারম্যান প্রার্থীর সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষে আহত ৯, আটক ১ দুর্গাপুরে কেন্দ্রে কেন্দ্রে পৌঁছে গেছে নির্বাচনি সরঞ্জামাদি; রাত পোহালেই ভোট  বাঘা উপজেলা নির্বাচনঃপ্রতীক পেয়ে প্রচারে চেয়ারম্যান পদে ২জনহ ৮ প্রার্থী রাজশাহীতে পুলিশের বিরুদ্ধে দুদকের মামলা বেলকুচিতে বসত বাড়িতে ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ড দুর্গাপুরে পান বরজে আগুন রাজশাহীতে মোটরসাইকেল আটকানোয় দুই পুলিশ সদস্যকে পেটালেন যুবক  চিকিৎসার জন্য ভারত গিয়ে নিখোঁজ এমপি আনার  উপজেলা নির্বাচনের দ্বিতীয় ধাপে কোটিপতির সংখ্যা ১০৫:টিআইবি তরুণদের উদ্যোক্তা হিসেবে গড়ে তুলতে কাজ করছে সরকার: প্রধানমন্ত্রী

N

পুঠিয়ায় মোবাইল কিনে না দেওয়ায় অভিমানে কিশোরের বিষ পানে আত্মহত্যা

  • আপডেট করা হয়েছে মঙ্গলবার, ৯ আগস্ট, ২০২২
  • ৩১৮ বার পড়া হয়েছে

শাহাদাত হোসাইন, (পুঠিয়া, রাজশাহী)

রাজশাহীর, পুঠিয়া উপজেলার, উত্তর ধোপাপাড়া গ্রামে মোবাইল ফোন কিনে না দেওয়ায় আশিক আলী (১৫) নামের এক কিশোর বিষপানে আত্মহত্যা করেছেন।

গত বৃহস্পতিবার (৪ আগস্ট) সকাল ১১ টার দিকে উপজেলার উত্তর ধোপাপাড়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

নিহত আশিক আলী, কৃষক মোঃ আয়নুদ্দির ছেলে। সে ধোপাপাড়া হাইস্কুলের ৮ম শ্রেণির ছাত্র ছিলো বলে জানা গেছে।

পুলিশ ও নিহতের স্বজনরা জানান, আশিক আলী বাবা-মায়ের কাছে একটি অ্যান্ড্রয়েড দামি মোবাইল ফোন কেনার জন্য টাকা চায়। কিন্তু এতো বেশি টাকা মূল্যের ফোন কিনে দিতে রাজি হননি তার বাবা-মা। ছেলেকে একটু কম দামের ফোন দিতে চাইলে সে তা নিতে রাজি হয়নি। এ নিয়ে বৃহস্পতিবার সকাল ১১ টার দিকে পিতামাতার অজান্তে বিষ পান করে। পরে তাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নেওয়া হয়। এর পর টানা ৪ দিন রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে মৃত্যুর সাথে পাঞ্জা লড়ে অবশেষে সেখানে আজ সে মারা যায়।

নিহত আশিক আলীর মা আফরোজা খাতুন বলেন, ‘অবুঝ ছেলেটা বেশ কিছুদিন ধরেই দামি ফোনের জন্য বায়না ধরেছিল। ওর বাবার কাছে টাকা না থাকায় কিনে দিতে পারিনি। করোনার কারণে এখন তারও আয়-রোজগারও কমে গেছে। তাই ছেলেটাকে একটু কম দামের ফোন কিনে দিতে চেয়েছিলাম। কিন্তু সে তা নিতে নারাজ। এ নিয়ে বিকেলে আমার সাথে ওর একটু ঝগড়া হয়। পরে অভিমানী ছেলেটা আমার বিষপান করে।

পুঠিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) সোহরাওয়ার্দী হোসেন জানান, এই বিষয়ে নগরীর রাজপাড়া থানায় একটি অপমৃত্যু মামলা দায়ের করা হয়েছে।

পরে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল থেকে নিয়ে এসে জানাযা দাফন কাফন শেষে কবরস্থ করা হয়।

আরো সংবাদ পড়ুন

Designed by: ATOZ IT HOST