1. shahalom.socio@gmail.com : admin :
  2. dbcjournal24@gmail.com : ডিবিসি জার্নাল ২৪ : ডিবিসি জার্নাল ২৪
দুর্যোগ মোকাবেলায় ধৈর্যের পরিচয় দিতে হবে - পলক - ডিবিসি জার্নাল২৪
শুক্রবার, ০২ ডিসেম্বর ২০২২, ১১:২১ পূর্বাহ্ন

Categories

দুর্যোগ মোকাবেলায় ধৈর্যের পরিচয় দিতে হবে – পলক

  • আপডেট করা হয়েছে শনিবার, ১৩ আগস্ট, ২০২২
  • ৬৮ বার পড়া হয়েছে

গোলাম গাউস, নাটোরে প্রতিনিধি

তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক এমপি বলেছেন, জননেত্রী শেখ হাসিনা করোনাকালিন সময়ে সংকট মোকাবেলা করেছেন। ইউক্রেন যুদ্ধে সারাবিশ্বে প্রভাব ফেলেছে। বাংলাদেশ ও এর ব্যতিক্রম না। সকল দুর্যোগ আমাদের ধৈর্যের সাথে মোকাবেলা করতে হবে।

প্রতিমন্ত্রী শুক্রবার বিকেল ৫ টায় কলম ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ আয়োজিত জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন।

কলম ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি নাসির উদ্দীনের সভাপতিত্বে সভায় বক্তব্য রাখেন উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি এডভোকেট ওহিদুর রহমান শেখ, সাধারণ সম্পাদক ও সিংড়া পৌর মেয়র আলহাজ্ব মোঃ জান্নাতুল ফেরদৌস,সিংড়া ডায়াবেটিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক রুহুল আমিন,
কলম ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মইনুল হক চুনু, কলম ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আলাউদ্দিন মুন্সি সহ আরো অনেকে।

পলক আরো বলেন, বঙ্গবন্ধু বারবার কারাঅভ্যন্তরে কাটিয়েছেন। এ দেশের মাটি ও মানুষের সেবায় তিনি নিজপর জীবন কে বিসর্জন দিয়েছেন। বঙ্গবন্ধুকে স্বপরিবারে হত্যার পরিকল্পনা করেছিলো ঘাতকরা। শিশু রাসেল কে ক্ষমা করতে পারেনি ঘাতকরা। প্রানভিক্ষা ও দেয়নি। কতটা পাষান ছিলো তারা। খন্দকার মোশতাক ৩ মাসে ও ক্ষমতায় থাকতে পারেনি। বৈইমানদের পরিনতি ভয়াবহ হয়। যারা বঙ্গবন্ধুকে খুন করেছিলো সেসব খুনিদের বিএনপি সরকার পুরস্কৃত করেছিলো। তাদের আশ্রয় প্রশ্রয় দিয়েছিলো। স্বাধীনতার ৫০ বছর পুর্তি হয়েছে। স্বাধীনতা বিরোধিরা ২৮ বছর ক্ষমতায় থেকে শোষন, নিপীড়ন করেছে।

প্রতিমন্ত্রী আরো বলেন, সিংড়ার মাটিতে ৩৭ বছর যারা ক্ষমতায় ছিলো তারা জনগণের কল্যানে কাজ করেনি। রাজনীতিকে সন্ত্রাস ও দুর্নীতির রাজ্য পরিনত করেছিলো তারা। রাজাকারদের পুনর্বাসন করেছিলো খুনি জিয়াউর রহমান। পবিত্র সংসদ কে অপবিত্র করেছে। কালো আইন পাশ করে কালো অধ্যায় রচনা করলো। বঙ্গবন্ধুর খুনিদের দেশে এনে ফিরিয়ে এনে রায় কার্যকরের দাবি জানান তিনি।

প্রতিমন্ত্রী পলক আরো বলেন, আমি আজীবন আপনাদের পাশে আছি, থাকবো। যেকোন দুর্যোগ, বিপর্যয়ে সাধ্যমত পাশে থাকার চেষ্টা করেছি। ১৩ বছর আগে সিংড়ার প্রত্যকটি এলাকা অন্ধকারে ছিলো। আমরা ১৩ বছরে সিংড়াকে আলোকিত করেছি। বিদ্যুৎ এর জন্য মানুষকে জীবন দিতে হয়েছে। বাংলাদেশ কে অশান্ত করার সকল ষড়যন্ত্র নস্যাত করতে হবে। সবাইকে ঐক্যবদ্ধ থেকে সকল ষড়যন্ত্র মোকাবেলা করার আহবান জানান তিনি।

শেয়ার করুন

কমেন্ট করুন

আরো সংবাদ পড়ুন